Ferdous

ভেজাল বাংলাদেশি পণ্য ‘ফেরদৌস’ ব্যবহারের কারনে হেরে গেছে মমতা দাবী বিশেষজ্ঞদের!

পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতের লোকসভার নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে আজ। এরই মধ্যে জানা গেছে যে বিপুল জনসমর্থন পেয়ে জিতে গেছে নরেন্দ্র মোদির বিজেপি।

এদিকে পশ্চিমবঙ্গেও বিজেপির কাছে বেশ ধরাশায়ী হয়েছে মমতা বন্দোপাধ্যায় এর তৃণমূল কংগ্রেস। বলতে গেলে হারের মুখই দেখছে মমতার দলটি।

Contact Of Sales Agent For Buying Ticket

banner
তবে এ হারের পর থেকে মমতাদির কোন খোঁঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মমতার খুব কাছের একজন জানান,

“দিদি আপনাদের ফেরদৌসকে খুঁজতে বেরিয়েছেন। যতসব কাঙ্গাল সালারা ভ্যাজাল!

দুই নম্বর মাল দিয়ে প্রচারণা চালিয়ে আজ এ হারের মুখ দেখতে হচ্ছে। দাদা বলছি কি,এত প্যানর প্যানর না করে নিজেদেরটা নিজেদের কাছেই রাখুন না!”

উল্লেখ্য যে, গত এপ্রিলে তৃণমূল কংগ্রেসের অর্থাৎ মমতা ব্যানার্জির পক্ষে কলকাতায় প্রচারণা করেন চিত্রনায়ক ফেরদৌস এবং বিজেপির আপত্তির কারণে ভারতের নির্বাচন কমিশন তাকে সে দেশে নিষিদ্ধ করে। তারপর তিনি রাতের আধারে পালিয়ে পায়ে হেঁটে দেশে চলে আসেন বলে জানা যায়।

বিজেপির কাছে তৃণমূ্লের এমন রামধরার কারণ জানতে চাওয়া হলে বিশিষ্ট রাজনৈতিক বিশেষগজ্ঞ শ্রী হারপ্রসাদ চৌরাসীয়া আমাদের জানান,

“আপনাদের দ্যাসে এত ভ্যাজাল কেনো বলুন তো দাদা?

এই যে মমতাদি ফেরদৌসকে নিয়ে এলেন প্রচারণায়, এই মালটার জন্যই আজ হেরে গেছে মমতাদি।
সালা, অপয়া!
সে দ্যাসের চাহিদা মিটিয়েছে মানলাম। ভ্যাজাল আপনারাই ব্যবহার করুন না দাদা।
ছুধু ছুধু কেন এ দ্যাসে আসে এসব মাল।”
travel
এদিকে আরেক নির্বাচন বিশেষজ্ঞ জনাব শিশু মিত্তির জানান,

“এতো কথা বলতে পাচ্ছি না দাদা।
মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য ব্যবহার করাটাই কাল হয়েছে।
ও কেন এসেছিল? দিদি কেন তাকে আনিয়েছিল, কিছুই বুঝদে পাচ্ছি না। যান তো ম্যালা প্যাচ প্যাচ করবেন না”

অপরদিকে মমতা ব্যানার্জীর হারের পর আমরা নায়ক ফেরদৌসের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করি। তার একান্ত ব্যক্তিগত সচিব ফোন রিসিভ করে জানান,

“ও মনু কও কি কইবা, মুই বরিশাইল্যা আবুল কইতাচি, স্যার মোর ধারে নাইগ্যা। ট্রাম্প এর লগে হ্যায়  ইলেকশনে প্রচারনার লাইগ্যা কথা কইতে আছে!”

এরপর আমরা লাইনটি কেটে দিয়ে তার বাসার উদ্দেশ্যে যাই। বাসায় গিয়ে তাকে পাওয়া যাইনি। দারোয়ান জানিয়েছে,মমতাদি এ দেশে এসে মোবাইল কোর্ট নিয়ে ফেরদৌসকে ‘ভেজাল মাল’হিসাবে চিহ্নিত করবেন বলে শুনেছে নায়ক ফেরদৌস। তাই সে আত্নগোপনে চলে গেছে।
আমরা এরপর তার ব্যক্তিগত নাম্বারে কল দিলেও তিনি ফোন ধরেন নি। বর একটি ক্ষুদে বার্তা পাঠান আমাদের।

তাতে লিখা,

“যত দোষ, নায়ক ফেরদোষ!”

News Source: bengalisarcasm

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *